Floating Facebook Widget

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ২ - Deshi News

০৪ জানুয়ারি ২০১৮,বৃহস্পতিবার,দেশীনিউজছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর মিছিলে সামনে দাঁড়ানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জড়িয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগ। আজ বৃহস্পতিবার বগিভিত্তিক সংগঠন ভিএক্স ও সিক্সটি নাইন এর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এতে গণিত বিভাগ চতুর্থ বর্ষের নাজমুস সামির ও প্রাণিবিদ্যা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের সাইদ আহমেদ নামে দু’জন গুরুতর আহত হয়। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ব্যাপক লাঠিচার্জ চালিয়েছে। বর্তমানে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বিবাদমান দুই পক্ষ সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। এর মধ্যে সিএক্সটি নাইন গ্রুপ সাবেক সভাপতি আলমগীর টিপু ও ভিএক্স গ্রুপ উপ-দফতর সম্পাদক মিজানুর রহমান বিপুলের নেতৃত্বে রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, জিরো পয়েন্টে দুপুর ১টার দিকে ছাত্রলীগের মেয়র নাছির গ্রুপের সব পক্ষ মিলে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর মিছিলের প্রস্তুতি নিচ্ছিলো। এ সময় মিছিলের সামনে দাঁড়ানো নিয়ে ভিএক্সের সঙ্গে অন্য পক্ষের নেতা-কর্মীদের কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। একপর্যায়ে ভিএক্স কর্মীদের ধাওয়া দেয় সিএক্সটি নাইনের কর্মীরা। পরবর্তীতে সোহওয়ার্দী হলের সামনে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনাও ঘটে। সংঘর্ষের সময় দেশীয় অস্ত্র দেখা যায়। এর রেশ ধরে ১ ঘণ্টা পর ফের উভয় পক্ষ দ্বিতীয় দফা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। পরিস্থিতি সামলাতে পুলিশ দুই পক্ষের মাঝে অবস্থান নেয়। একপর্যায়ে পুলিশ ব্যাপক লাঠিচার্জ শুরু করে। বর্তমানে সিএক্সটি নাইন শাহজালাল হল ও ভিএক্স সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে অবস্থান করছে। সংঘর্ষ এড়াতে বিপুল পরিমাণ পুলিশ সদস্য মোতায়েন রয়েছে। ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলমগীর টিপু বলেন, মিছিলের মধ্যে দাঁড়ানো নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হয়। পরে মিছিল হলে আবার উত্তেজনা হয়। বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে ভিএক্স গ্রুপের নেতা ও সাবেক উপ-দফতর সম্পাদক মিজানুর রহমান বিপুলের মুঠোফোনে বার বার কল দিয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সার্বিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর লিটন মিত্র বলেন, মিছিলে দাঁড়ানো নিয়ে নাছির গ্রুপের সব পক্ষের সঙ্গে ভিএক্স গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। একপর্যায়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পুলিশের উপস্থিতিতে আমরা ঘটনাস্থলে আছি। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে।

দেশীনিউজ/আবু হানিফ

শিক্ষাঙ্গন