Floating Facebook Widget

ময়মনসিংহে অস্ত্রের কারখানার সন্ধান - Deshi News

২৯ নভেম্বর ২০১৭,বুধবার,দেশীনিউজময়মনসিংহ শহরের আকুয়া মিলনবাগ এলাকার একটি বাসায় অস্ত্র তৈরির মিনি কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে বলে দাবী করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ওই বাসায় অভিযান চালিয়ে বিপুল অস্ত্রসহ দুই যুবককে আটক করা হয়েছে বলে র‌্যাবের পক্ষ থেকে দাবী করা হয়েছে। র‌্যাব জানায়, এসময় চারটি পিস্তল, সাত রাউন্ড গুলি ও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। 

আটক যুবক সোহেল (২২) ও বাহার (২৫) অস্ত্রতৈরির কারিগর বলেও দাবি র‌্যাব দাবী করেছে। তবে এরা কোনো উগ্রবাদী সংগঠনের সাথে জড়িত কী না, তা নিশ্চিত করা হয়নি।

র‌্যাব-১৪-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. শরীফুল ইসলাম ঘটনাস্থলে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে জানান, রাত দেড়টার দিকে ময়মনসিংহ শহরের নাসিরাবাদ কলেজ মাঠের পাশে মঈন উদ্দিন নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব। এসময় র‌্যাব বাড়িটি ঘিরে ফেলে। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রসীরা বাড়ির ভেতর থেকে প্রথমে প্রতিরোধ ও পরে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় র‌্যাবের হাতে দু’জন ধরা পড়ে। বাড়ির মালিকের ছেলে নুরুদ্দিন পালিয়ে গেছে। 

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে ওই বাড়ির ভিতরে তল্লাশি চালায় র‌্যাব। বিশেষভাবে তৈরি করা ওই বাড়ির ভিতর একটি গোপন কক্ষের সন্ধান পাওয়া যায়। কক্ষটির চৌকির ওপর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে চারটি পিস্তল, সাত রাউন্ড গুলি, চারটি ম্যাগাজিন, আটটি চাকু, চারটি হাতুড়ি, একটি চায়নিজ কুড়াল, তিনটি প্লাস, দুটি ড্র্রিল মেশিন, কাটার, শাইন, একটি বাইশ এবং অস্ত্র তৈরির বিপুল সরঞ্জাম। কক্ষটি আধুনিক মডেলের অস্ত্র তৈরির মিনি কারখানা বলা যায় বলেও দাবি করেন তিনি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা মইনুদ্দিনের বাসা ভাড়া নিয়ে অস্ত্র তৈরি ও বিক্রয়ের কথা স্বীকার করেছে। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে আরো অনেক তথ্য পাওয়া যাবে। এদের সঙ্গে জড়িত অন্যদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা জানান।

এ ব্যাপারে আজ বুধবার দুপুরে র‌্যাব-১৪ সদর দফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে বলে র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে।

দেশীনিউজ/শহিদ উল্লাহ বাবলু

অপরাধ জগৎ