Floating Facebook Widget

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী ও ভারতীয়সহ বিভিন্ন দেশের ৪০৯ জন আটক - Deshi News

০৯ আগস্ট ২০১৭,বুধবার,দেশীনিউজ: মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে বাংলাদেশী ও ভারতীয়সহ বিভিন্ন দেশের ৪০৯ জনকে আটক করেছে ওই দেশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ ডিভিশন। তবে অভিযানের পর পুলিশ যাচাই-বাছাই শেষে ২৭৫ জনকেই ছেড়ে দিয়েছে। বাকিদের ইমিগ্রেশন আইন ভঙ্গের অভিযোগে আটক করেছে। তবে সেই সংখ্যা কত তা জানা যায়নি। 

এ দিকে মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার ওই অভিযানে কতজন বাংলাদেশী আটক হয়েছেন গতকাল তা মালয়েশিয়ান কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চেয়েছেন বলে হাইকমিশনের একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে। 

গত রাতে মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো: শহীদুল ইসলামের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু তিনি টেলিফোন ধরেননি। 

সে দেশের ইমিগ্রেশনের শীর্ষ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, আগামী ১৯-৩১ আগস্ট মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে ২৯তম সাউথ এশিয়ান গেমস অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ওই গেমস উপলক্ষে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই মালয়েশিয়ান স্পেশাল ব্রাঞ্চ পুলিশ সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান শুরু করেছে। এটি আরো কয়েক দিন চলবে বলেও জানানো হয়। এই অভিযানে বাংলাদেশ, ইন্ডিয়া ও পাকিস্তানের অভিবাসী শ্রমিক বেশি আটক হয়েছে বলে জানান তারা। 

গত সোমবারের অভিযানে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, নাইজেরিয়াসহ ৮টি দেশের ৪০৯ জন নাগরিককে আটক করা হয়। আটকদের মধ্যে কতজন বাংলাদেশী রয়েছেন সেটি জানতে আরো কয়েক দিন সময় লাগতে পারে বলে মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান। 

এ প্রসঙ্গে ওই কর্মকর্তার ভাষ্য, একটি অভিযান চলার সময় কোনো বিদেশী অনিয়মিত নাগরিক সামনে পড়লে তাকে আটক করা হয়। এ েেত্রও তাই হয়েছে। ওই কর্মকর্তা আরো জানান, বর্তমান অভিযান মালয়েশিয়ায় অনিয়মিত বিদেশী নাগরিকদের ধরার জন্য নয়, বরং আগামী সপ্তাহে দণি-পূর্ব এশিয়ান গেমসে সন্ত্রাসমূলক কর্মকাণ্ড প্রতিরোধের জন্য করা হয়েছে। এই আয়োজন শেষ না হওয়া পর্যন্ত সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

দেশীনিউজ/এষার

প্রবাস